এই পাঁচটি কারনে SAMSUNG GALAXY S10 LITE কেনা যায়

এই পাঁচটি কারনে SAMSUNG GALAXY S10 LITE কেনা যায়

Aparajita Maitra | 23 Jan 2020
HIGHLIGHTS

আজকেই স্যামসাং Galaxy S10 Lite ফোনটি লঞ্চ হয়েছে

এই ফোনের 48MP র মেন ক্যামেরা আছে

ফোনে আছে স্ন্যাপড্র্যাগন 855

ভারতে এই সময়ে স্যামসাং তাদের দুটি ফোন লঞ্চ করেছে দুটিই বহু প্রতীক্ষিত ফোন Samsung Galaxy S10 Lite, Samsung Galaxy Note 10 Lite আর এই দুটি ফোনের সঙ্গে আজকে আমরা আপনাদের কাছে ওয়ানপ্লাসের ফোন OnePlus 7T র একটি তুলনা মূলক আলোচনা করব। এর মুল কারন এই যে এই তিনটি ফোনই ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইসকে আলাদা আলাদা ভাবে তুলনামূলক কম দামে একাধিক স্পেক্স আর ফিচার্সের সঙ্গে নিয়ে এসেছে।

আর আপনারা যদি 40 হাজার টাকার মধ্যে ফোন কিনতে চান তবে এই তিনটি ফোন এই সময়ে আপনাদের সামনে আছে। আর এই তিনটি ফোনে ঠিক কি আছে আর এর মধ্যে থেকে কোন ফোন আপনার কাজের হবে আর তা কেনা উচিৎ আমরা আজকে তাই আপনাদের জানাবো।

ডিসপ্লে

আমরা যদি প্রথমে সদ্য লঞ্চ হওয়া ফোন Samsung Galaxy S10 LIte ফোনটি দেখি তবে এই ফোনে আপনারা 6.7 ইঞ্চির ফুল HD+ (2400X1080P) রেজিলিউশানের ডিসপ্লে পাবেন। আর এই ফোনের ডিসপ্লে সুপার AMOLED প্লাস ইনফিনিটি O ডিসপ্লে দিচ্ছে। আর এই ফোনে আছে 394PPI.

আর এর সঙ্গে যদি আমরা Samsung Galaxy Note 10 Lite ফোনটি দেখি তবে এই ফোনে আপনারা পাবেন একটি 6.7 ইঞ্চির ফুল HD+(2400x1080 p) রেজিলিউশানের ইনফিনিটি O সুপার AMOLED ডিসপ্লের ফোন যা 20:9 অ্যাস্পেক্ট রেশিও দিচ্ছে।

আবার OnePlus 7T ফোনে আছে  6.55 ইঞ্চির ফ্লুইড AMOLED ডিসপ্লে যা ঐ একই পিক্সাল রেজিলিউশান অফার করে আর সঙ্গে এর রিফ্রেস রেট 90Hz.

এখানে যদি দেখেন তবে দেখা যাবে যে তিনটি ফোনের ডিসপ্লের আকারের মধ্যে বেশি পার্থক্য নেই তবে যদি একটি একটু বড় আকারের সুপার AMOLED যুক্ত ডিসপ্লের ফোন কিনতে চান তবে অবশ্যই Samsung য়ের দুটি ফোন এগিয়ে আছে। আবার OnePlus 7T ফ্লুইড AMOLED ডিসপ্লে দিয়েছে যা অন্যান্য ডিসপ্লের থেকে একদম আলাদা। ব্যাক্তিগত ভাবে যদিও আমার কাছে এই তিনটি ফোনের ডিসপ্লেই ভাল তবে যদি একটি নতুন আর বড় ডিসপ্লের ফোন চান তবে স্যামসাংয়ের ফোন আপনার প্রথম চয়েস। আর যদি ফ্লুইড AMOLED ডিসপ্লেই আপনার পছন্দের তবে OnePlus 7T নিজের করতে পারবেন। তবে একটা কথা এও ঠিক যে স্যামসাংয়ের ফোন দুটি ঠিক যতটা নতুন OnePlus সেখানে তাদের এই বছরের নতুন ফোন আনার তোড়জোড় করছে।

পার্ফর্মেন্স

Samsung Galaxy S10Lite কেনার দ্বিতীয় কারন এর স্ন্যাপড্র্যাগন 855 চিপসেট। এটি একটি ফ্ল্যাগশিপ প্রসেসার আর যা এই ফোনে দেওয়ার ফলে ফোনের পার্ফরমেন্স ভাল হবে।

আবার সেখানে Samsung Galaxy Note 10 Lite য়ে আছে স্যামসাংয়ের নিজস্ব এক্সিয়ন্স 9810 অক্টা কোর SoC.

আর ওয়ানপ্লাসের ফোন OnePlus 7T তে আপনারা পাবেন স্ন্যাপড্র্যাগন 855+ চিপসেট।

এক্সিয়ন্সের চিপসেটটিও ভাল তবে আপনি যদি স্ন্যাপড্র্যাগন পছন্দ করেন তবে সেক্ষেত্রে আপনাদের কাছে দুটি অপশান আছে। তবে এও দেখার যে 855 য়েরই দুটি চিপসেট স্যামসাং আর ওয়ানপ্লাসের ফোনে দেওয়া হয়েছে।

র‍্যাম আর স্টোরেজ

আমরা যদি ফোনের র‍্যাম আর স্টোরেজ দেখি তবে Samsung Galaxy S10 Lite ফোনে আপনারা পাবেন 8GB LPDDR4x র‍্যাম যা 128GB স্টোরেজের সঙ্গে এসেছে সেখানে এই স্টোরেজ 1TB পর্যন্ত এক্সপেন্ড করা যায়। এমনিতেই এর ইনবিল্ড স্টোরেজ অনেক আর এক্সপেন্ডেবেল যা স্টোরেজ তাতে আপনারা একাধিক সিনেমাও এতে রাখতে পারবেন।

আবার Samsung Galaxy Note 10 Lite ফোনে আপনারা পাবেন 6GB আর 8GB র‍্যামের অপশান। আর এই ফনে 128GB র ইন্টারনাল স্টোরেজ আছে এই স্টোরেজও 1TB পর্যন্ত এক্সপেন্ড করা যায়। আর এই ফোনটি যেহেতু স্যামসাংয়ের নোট 10 সিরিজের অংশ বা বলা ভাল নোট সিরিজের অংশ তাই এই ফোনে আপনারা পাবেন একটি S-Pen।

OnePlus 7T ফোনে সেখানে 8GB র‍্যামের সঙ্গে 128GB আর 256GB র দুটি স্টোরেজ অপশান আছে তবে এই ফোনে এক্সপেন্ডেবেল স্টোরেজ অপশান নেই।

যদি আপনার জন্য স্টোরেজ মুল বিষয় হয় তবে সব কটি ফোনই ভাল কিন্তু এখানে স্যামসাং ফোনে আপনারা স্টোরেজ এক্সপেন্ড করার সুযোগ পেলেও OnePlus য়ের ফোনে আপনারা সেই সুযোগ পাবেন না। আর স্যামসাং ফোনে 1TB পর্যন্ত স্টোরেজ এক্সপেন্ড করা যাবে।

ক্যামেরা

Samsung Galaxy S10 Lite ফোনে ট্রিপেল রেয়ার ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে যার মুল ক্যামেরা 48MP র আর এটি f/2.0 অ্যাপার্চারের সঙ্গে এসেছে  আর এটি OIS+ একটি 12MP র ক্যামেরার সঙ্গে এসেছে। আর এতে একটি ওয়াইড সেন্সার আছে যা f/2.2 অ্যাপার্চারের আর 5MP র ম্যাক্রো ক্যামেরা f/2.0 অ্যাপার্চারের  সঙ্গে এসেছে।

আর Samsung Galaxy S10 Lite ফোনে আছে একটি 32MP র ফ্রন্ট ক্যামেরা।

আবার Samsung Galaxy note 10 Lite ফোনে আছে ট্রিপেল ক্যামেরা সেটআপ যা 12MP র মেন ক্যামেরার সঙ্গে ডুয়াল পিক্সাল অটোফোকাস আর f/1.7 অ্যাপার্চার আছে আর আছে OIS। আর এর সঙ্গে আছে একটি 12MP র ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ক্যামেরা যা f/2.2 অ্যাপার্চারের আর সঙ্গে একটি 12MP র টেলিফটো লেন্স যা f/2.4 অ্যাপার্চার সাপোর্ট করে। আর এই ফোনের ফ্রন্টে একটি f/2.2 অ্যাপার্চারের 32 মেগাপিক্সালের ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে।

OnePlus 7T ফোনে আছে মেন 48Mp র ক্যামেরা যা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্সের আর আছে 12MP র টেলিফটো আর 16MP র আল্ট্রা ওয়াইড লেন্স। আর এই ফোনে এর সঙ্গে আছে একটি 16MP র ফ্রন্ট ক্যামেরা।

ক্যামেরার দিকে স্যামসাংয়ের ফোনটি অনেকটাই এগিয়ে। আর এই ক্যামেরার কারন Samsung Galaxy S10 Lite কেনার একটি বড় কারন হিসাবে গন্য হবে।

ব্যাটারি

এবার যদি ফোনের ব্যাটারি দেখা হয় তবে দেখা যাবে যে Samsung Galaxy S10 Lite ফোনে আপনারা 4500mAh য়ের ব্যাটারি পাবেন যা 25W ফাস্ট চার্জ সাপোর্ট করবে।

 Galaxy Note 10 ফোনে আপনারা একটি 4500mAh য়ের ব্যাটারি পাবেন যা সুপার ফাস্ট প্রযুক্তি সাপোর্ট করে।

আর সেখানে OnePlus 7T ফোনে আছে 3800mAh য়ের ব্যাটারি যা 30W র‍্যাপ চার্জ সাপোর্ট করে।

এই পাঁচটি কারনে আপনারা মানে বড় ডিসপ্লে আর ব্যাটারি, স্ন্যাপড্র্যাগন 855, 1TB পর্যন্ত এক্সপেন্ডেবেল স্টোরেজ আর 48MP র মেন ক্যামেরা এই সবের জন্য স্যামসাংয়ের ফোনটি বা বলা ভাল স্যামসাং ফোনটি কেনার বড় কারন এই কারন গুলি।

আর এবার একবার একি তিনটি ফোনের দামও আপনাদের জানিয়ে রাখি। Samsung Galaxy S10 Lite য়ের দাম 39,999 টাকা, Samsung Galaxy Note 10 Lite য়ের প্রাথমিক দাম 38,999 টাকা আর সেখানে OnePlus 7T ফোনের দাম 34,999 টাকা।

স্যামসাং S10 Lite ফোনটি আজ থেকে প্রি বুক করা যাচ্ছে আর Samsung Note 10 LIte 3 ফেব্রুয়ারি থেকে কেনা যাবে আর OnePlus 7T ফোনটি অনলাইনে আপনারা কিনতে পারবেন।  

Digit caters to the largest community of tech buyers, users and enthusiasts in India. The all new Digit in continues the legacy of Thinkdigit.com as one of the largest portals in India committed to technology users and buyers. Digit is also one of the most trusted names when it comes to technology reviews and buying advice and is home to the Digit Test Lab, India's most proficient center for testing and reviewing technology products.

We are about leadership-the 9.9 kind! Building a leading media company out of India.And,grooming new leaders for this promising industry.