ONEPLUS 7T PRO MCLAREN EDITION য়ের গেমিংয়ের সঙ্গে অন্য গেমিং ফ্ল্যাগশিপ ফোনের গেমিংয়ের তুলনা

ONEPLUS 7T PRO MCLAREN EDITION য়ের গেমিংয়ের সঙ্গে অন্য গেমিং ফ্ল্যাগশিপ ফোনের গেমিংয়ের তুলনা

Digit Bangla | 11 Oct 2019
HIGHLIGHTS

আমারা OnePlus 7T Pro McLaren য়ের সঙ্গে এমনি OnePlus 7T Pro আর নতুন লঞ্চ হওয়া Asus ROG Phone II আর ব্ল্যাক শার্ক 2 র গেমিং ফোন যা সবে নতুন স্ন্যাপড্র্যাগন 855 প্লাসের সঙ্গে এসেছে আর এর সঙ্গে তুলনা করে দেখেছি

OnePlus 7T লঞ্চ হ্যেচ গেছে আর এবার OnePlus 7T Pro ও এসেগেছে। আর এই ফোনটি লন্ডনে একটি ইভেন্টে এসেছে আর এর সঙ্গে কোম্পানি প্রো ভেরিয়েন্টের সঙ্গে একটি স্পেশাল OnePlus 7T Pro McLaren এডিশানও নিয়ে এসেছে, এই ফোনে 12GB র র‍্যাম দেওয়া হয়েছে। আর যা একটি ফোনের গেমিংয়ের জন্য সব থেকে দরকারি। এই ফোনের ভেতরে আছে কোয়াল্কম স্ন্যাপড্র্যাগন 855 প্লাস। আর এর ডিসপ্লে, ব্যাটারি ক্যামেরা বাকি সব কিছু একই। আর এবার দেখার যে একটি ভাল প্রসেসার কি ভাল পার্ফর্মেন্স দেয়। আর গেমের ক্ষেত্রে কি ইম্প্রুভমেন্ট এসেছে?

OnePlus 7T Pro McLaren এডিশানের সঙ্গে এমনি OnePlus 7T Pro আর নতুন লঞ্চ হওয়া ASUS ROG Phone II আর Black Shark 2 যা গেমিং ফোন আর যা স্ন্যাপড্র্যাগন 855 প্লাসের সঙ্গে এসেছে সেই OnePlus 7T Pro McLaren এডিশানের তুলনা করে দেখা হয়েছে। OnePlus 7T Pro McLaren এডিশান এই সময়ের অন্যতম দ্রুততম একটি স্মার্টফোন।

আমরা এখানে এই আর্টিকেলটি শুরু করার আগে আপনাদের জানাচ্ছি যে এখাএন OnePlus 7T Pro আর OnePlus 7T Pro McLaren এডিশানের বেঞ্চমার্ক স্কোর নেই। আমরা এই স্মার্টফোন আগেই রিভিউয়ের জন্য পেয়েছি আর ওয়ানপ্লাস লঞ্চের আগে বেঞ্চমার্ক অ্যাপ এতে লক করে রেখেছে।

এবার আর বেশি কথা না বাড়িয়ে আমরা এখানে এই স্মার্টফোন গুলির বিষয় দেখেনি

OnePLus 7T Pro McLAren VS OnePlus 7T Pro VS Asus Rog Phone II VS Black Shark 2
 

OnePlus 7T Pro McLaren এডিশান আর OnePlus 7T Pro নতুন স্ন্যাপড্র্যাগন 855 প্লাসের সঙ্গে এসেছে। আর Asus ROG Phone IIও তাই। আর Black Shark 2 এমনি স্ন্যাপড্র্যাগন 855 য়ের সঙ্গে এসেছে আর এতে অবশ্য আছে Ludicrous মোড যা হার্ডওয়্যার কে তার লিমিটে নিয়ে যায়। Rog Phone II একটি ডেটিকেটেড গেমিং মোডের সঙ্গে এসেছে আর সেখানে OnePlus ডিভাইস ফানটিক মোডের সঙ্গে এসেছে যা গেমিং মোড একটি স্ট্রিপড ডাউন করে বাকি দুই ফোনের তুলনায়, তবে তাও এটি ব্যাবহার করা যায়।

স্ন্যাপড্র্যাগন 855 প্লাসের কি ফ্যাক্টার এখানে দেখা যাক। কোয়াল্কম এতে স্পিড প্রাইম কোর 2.9GHz দিয়েছে যেখানে স্ন্যাপড্র্যাগন 855 য়ের এই স্কোর 2.84GHz। অ্যাড্রিনো 640 GPU SD855 প্লাসে SD855 য়ের থেকে বেশি আর যা ভাল যা বেশি দ্রুত গ্রাফিক রিডিং দেয়। আর এর সঙ্গে আর এর সঙ্গে স্ন্যাপড্র্যাগনের এলিট গেমিং ফিচার স্ন্যাপড্র্যাগন 855 প্লাসকে এই সময়ের অ্যান্ড্রয়েড ফোনের হটেস্ট চিপসেট বানিয়েছে।

আর মজার ব্যাপার এই যে OnePlus 7T Pro McLaren আর Asus ROG Phone II দুটি ফোনেই 12GB র র‍্যাম আছে আর  7T Pro আর Black Shark 2 ফোনে আছে 8GB র‍্যাম। আর ওয়ানপ্লাস ফোন আর ROG Phone II UFS 3.0 স্টোরজের আর স্কেহানে ব্ল্যাক শার্ক 2 UFS 2.1 যুক্ত।

আর ব্যাটারি লাইফের ক্ষেত্রে ROG Phone II তে আছে 6,000mAh য়ের ব্যাটারি OnePlus 7T Pro আর OnePlus 7T Pro McLaren য়ে আছে 4000mAh য়ের ব্যাটারি আর যা র‍্য্যাপ চার্জ 30T সাপোর্ট করে। আর ব্ল্যাকশার্ক 2 তা আছে 4000mAh য়ের ব্যাতারি যা 27W ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে।

আমরা চারটি ফোনের স্পেক্স জানি আর এখানে দেখা যাক যে তারা কি করে হাই এন্ড অ্যান্ড্রয়েড গেম হ্যান্ডেল করে-

 

COD MOBILE

আমরা এখানে Call of Duty: Mobile আমাদের এই চারটি ফোনে চালিয়েছে এখানে OnePlus 7T Pro McLaren আর sus ROG Phone II এখানে 60FPS করেছে। আর সেখানে OnePlus 7T Pro McLaren ROG র যথাক্রমে 76 পারসেন্ট আর 71 পারসেন্ট করেছে। আর সেখানে রেগুলার OnePlus 7T Pro র 31FPS য়ের কম ক্লক করেছে আর যা 55 পারসেন্টএর স্টেবিলিটি দেয়। Black Shark 2 ও 31FPS আর 51 শতাংশ স্টেবিলিটি দিয়েছে। আর এখানে ওয়ানপ্লাসের দুটি ডিভাইসের নাম্বারের পার্থক্য ভাল করে দেখা যাচ্ছে আর এখাএন এই গেম বেশ নতুন আর এতে ডিভাইসে কোন বাগ নেই। আর কোর্স টেস্টের সময়ে আমরা গেমের রেট ভেরিফাই করতে পারিনি সেশান অনুসারে। আর এখানে একটাই কথা বলার যে আমরা এখানে লাস্ট স্কোর রেখেছি।

ASPHALT 9 LEGENDS

হেভি গানফাইটের পরে মারা হাই অক্টান রেসিংইয়ে গেছি। Asphalt 9 আমারা এখানে খেলেছি আর ROG Phone IIর বেজেক 58FPS আর 89% স্টেবেল। আর দুটি ওয়ানপ্লাস ফোনই 30 FPS ক্লক করেছে 96 শতাংশ আর 91 শতাংসতে। Black Shark 2 ফোনের ক্লক্স 30FPS আর এর সঙ্গে 95 পারসেন্ট স্টেবিলিটি। আর এখানে চারটি স্পেশাল টাই আপ ROG Phone II র সঙ্গে Gameloftয়ে স্পেশাল টাই আপ আছে আর তাই এখানে গেম হায়ার ফ্রেম রেটে রান করা গতেছে যা ভিউসুয়ালি আলাদা এফেক্ট এনেছে।

PUBG MOBILE

আর এবার আমরা সবার প্রিয় ব্যাটাল রয়ালের বিষয়ে বলব আমরা দেখেছি যে টাচ 60FPS  যে কোন ডিসপাইট মাল্টিপেল রাউন্ড টেস্টিংয়ে। আর এর সঙ্গে চিন্তিত যে এখানে আমরা ম্যাক্সিমাম ফ্রেম রেট টেস্টিংয়ের আগে দেখেছি। আর Tencent  গেমটি ভাল গ্রাফিক্সের জন্য যথেষ্ট নয় কি? আর এখাএন আমাদের বেশি নেগিভেশান দরকার। আর এখানে আমরা কি দেখেছি

OnePlus 7T Pro McLaren য়ের ক্লক 40FPS 59 শতাংশর সঙ্গে। Black Shark 2  40 FPS 59 শতাংশতে স্টেবেল। আর রেগুলার  OnePlus 7T Pro  39 FPS 51 শাতাংস ম্যানেজ করেছে। আর সেখাএন Asus ROG Phone II করেছে 36 FPS 71 শতাংশ স্টেবিলিটির সঙ্গে।

ONEPLUS য়ের প্রাইম কোরের কি হল?

গেম গুলি হিট ছারা রান করেছে আর আমরা এখানে কোন অ্যানোমালি দেখিনি। গেমবেঞ্চার্সের ডাটা CPU তে ইন গেমে প্রাইম কোরের স্ন্যাপড্র্যাগন 855 প্লাস আর OnePlus 7T Pro আর OnePlus 7T Pro Mclaren সেখানে কম এনগেজড হয়েছে আর সেখানে কল ডিউটিতে মোবাইল । আর অন্য কিছুতে 1.1GHz আর 2.96GHz  প্রমিস করে না। আর এর সঙ্গে Asus ROG Phone II ও কমই প্রাই কোর SD855 প্লাস ব্যাবহার করেছে। আর সেখানে কেউ বলতে পারেনা যে ব্ল্যাক শার্ক ফোনটিও তাই। আর এই Ludicrous Mode ফোনে সব রানিং কোর পিক ফ্রিকুয়েন্সিতে রেখেছে আর এর সঙ্গে আছে বাম্প থার্মাল।

এখানে নিচের ছবিতে দেখা গেছে যে শেষ বারে কোর 8 গেমবেঞ্চার্স চার্জটে আছে স্ন্যাপড্র্যাগন 855 পাস্লের সঙ্গে আর যা ব্ল্যাক শার্ক 2 র সঙ্গে সহজে এক সঙ্গে রান করে।

OnePlus 7T Pro McLaren Edition

OnePlus 7T Pro

Asus ROG Phone II

Black Shark 2

 

আর এখনে অনেক কিছু দেখে এও বলা যায় যে গেম গেম রান করার জন্য প্রাইম কোর তার পিকে রান করার জন্য দরকার হয়না। আর এটি পাওয়ার সেভ করার জন্য পারফেক্ট, থার্মাল চেক করে। আর এখানে দেখার যে স্মার্টফোনে স্ন্যাপড্র্যাগফন 855 প্লাস কি করে, গেম এই ধরনের ফায়ার পাওয়ার চায় না। আর এখানে একটি বিষয় যে প্রিমিয়াম ফোনে ‘গেম-রেডি’SOC র দরকার?

উপসংহার

গেমিংয়ের ক্ষেত্রে OnePlus 7T Pro McLarenরেগুলার OnePlus 7T Pro র থেকে একটু এডজ দেখিএছে। আর আসুস ROG PHONE II ও কিছু ক্ষেত্রে ভাল প্রতিযোগিতা দিয়েছে আর তার হায়ার FPS য়ে বিট করেছে। আর Black Shark সেখানে একটু অড। এটি খুব বেশি হলে OnePlus 7T Proর সঙ্গে যেতে পারে। আর এবার সেই প্রশ্ন যে McLaren  এডিশান কেনার জন্য কি এটি যথেষ্ট কারন না কি OnePlus 7T Pro কেনা যায়। গেমিংয়ের জন্য আমরা বলব 12GB র‍্যামের OnePlus 7T Pro McLaren এডিশান কেনার কথা যা OnePlus 7T Pro র থেকে বেশি ফ্রেম রেট দেয়। তবে মার্জিনের ক্ষেত্রে (CoD মোবাইল ছাড়া তবে সেখানে গেমে বাগও থাকে) যা আপগ্রেড করা যায়। 

Digit caters to the largest community of tech buyers, users and enthusiasts in India. The all new Digit in continues the legacy of Thinkdigit.com as one of the largest portals in India committed to technology users and buyers. Digit is also one of the most trusted names when it comes to technology reviews and buying advice and is home to the Digit Test Lab, India's most proficient center for testing and reviewing technology products.

We are about leadership-the 9.9 kind! Building a leading media company out of India.And,grooming new leaders for this promising industry.