জিয়াওমি Mi TV Review

দ্বারা Sameer Mitha | আপডেট করা Apr 06 2018
জিয়াওমি Mi TV Review
DIGIT RATING
80 /100
  • design

    85

  • performance

    70

  • value for money

    94

  • feature

    77

User Rating : 3/5 Out of 2 Reviews
  • PROS
  • ভাল 4K HDR টিভি পার্ফর্মেন্স
  • অসাধারন কন্সোল গেমিং পার্ফর্মেন্স
  • 10-বিট প্যানেল
  • স্লিম ডিজাইন
  • CONS
  • ভিউইং অ্যাঙ্গেল আর ব্ল্যাক লেবেলে আরও উন্নতি হলে ভাল হয়
  • স্পিকারের সাউন্ড কোয়ালিটি আরও ভাল হতে পারত
  • প্যাচওয়েল OS অসম্পূর্ণ বলে মনে হয়
  • আভ্যন্তরীণ পরিষেবা 4K তে কন্টেন্ট দেয় না

নির্ণয়

বেশির ভাগ মানুষই এটা জানতে আগ্রহী হবেন যে এই টিভিটি কেমন। আর সেক্ষেত্রে আমাদের উত্তর হ্যাঁ 39,999 টাকা দামে আপনি একটি 10-বিট প্যানেল পাবেন যা 4K আর HDRয়ে কানেক্ট করতে সক্ষম হবে। আর আমাদের মনে হয় যে এই টিভিটি কেনার জন্য ভাল। এছাড়া এই টিভিটিতে 60Hzয়ের ওপর 4K এইচডিআর দেয়। আর আপনার কাছে যদি OS না থাকে তবে আপনি সবসময় একটি ক্রোমকাস্ট, ফায়ার টিভি স্টিক বা অন্য কোন বক্সে প্লে করতে পারবেন। তবে টিভি বা স্পিকার সেরা নয়, যার মাধ্যমে আপনি ফিল্মের ভেতর নিতে পারবেন, কিন্তু বেশিভাগ টিভি বা স্পিকার এরকমই হয়। হ্যাঁ টিভিটিতে 3.5mm আর RCAয়ের মতন কানেকশান অপশান থাকা দরকার। টিভি প্যানেলের সঙ্গে একমাত্র সমস্যা এই যে এটি রিফ্লেক্লটিভ, আর ব্ল্যাক লেভেল আর ভাল হতে পারত। আপনি যদি 40 হাজার টাকা বাজেটের মধ্যে একটি 4K টিভি খুঁজে থাকেন তবে Mi TV একটি ভাল অপশান হতে পারে।

BUY জিয়াওমি Mi TV

Buy now on flipkart পাওয়া যাচ্ছে 44999

জিয়াওমি Mi TV detailed review

বাজেটের মধ্যে ভাল টিভি বাছাই করা একটি দরকারি ব্যাপার। কারন আপনি রেজিলিউশান, প্যানেল কোয়ালিটী, পিকচার কোয়ালিটি, সাউন্ড, কানেক্টিভিটি, স্মার্ট ফিচার্স আর সমস্ত সমস্যা দূর করার চেষ্টা করছেন আর এর ফল সাওমির Mi TV 4। এই টিভিটি 4K, HDR 10 ক্ষমতা সম্পন্ন হওয়ার দাবি করেছে আর এতে 10-বিট VA প্যানেল আছে, যা স্যামসং য়ের দ্বারা বানানো হয়েছে। এই টিভিটিতে একটি আলদা ইউনিক ইন্টারফেস বানানো হয়েছে। এই টিভিটিতে একটি আলাদা (ইউনিক) ইন্টারফেস যুক্ত। Mi Smart LED TV 4 য়ের সঙ্গে সাওমি আকর্ষণীয় স্পেসিফিকেশান অফার করেছে আর LED TV বাজারে লঞ্চ করেছে।
 
প্রধান স্পেসিফিকেশান
প্যানেল সাইজ: 55-inch
প্যানেল টাইপ: VA
প্যানেল রেজিলিউশান: 3840 x 2160 - 4K
প্যানেল রিফ্রেস রেট: 60Hz
HDR 10 সাপোর্ট: হ্যাঁ
ডল্বি বিশান সাপোর্ট: না
ওজন: 17.8kgs
HDMI পোর্টস: 3
USB পোর্টস: 2
ব্লুটুথ: হ্যাঁ, 4.0
Wi-Fi: হ্যাঁ
ইথারনেট: হ্যাঁ
স্পিকার্স: 2 x 8W
CPU: এমলজিক কার্টেক্স A53 কোয়াড কোর, আপ টু 1.8GHz
GPU: মালী-T830 MP2, আপ টু 750MHz
র‍্যাম: 2GB
বিল্ট ইন স্টোরেজ: 8G
 
ডিজাইন
Xiaomi Mi LED স্মার্টটিভি 4 আসলে একটি স্লিম টেলিভিশান। Mi TV 4 য়ের সব তেহেক স্লিম পয়েন্ট সাইজ 4.9mm। এটি একটি ফ্ল্যাগশিপ টিভি, যার নিজের দিক একটু মোটা, কারন এখানে ইন্টারনাল আছে। এই টিভিটিতে টিয়ারে লাগানো যাবে আর এটি স্ট্যান্ডেও রাখা যাবে। সব মিলিয়ে টিভিটির ডিজাইন বেশ আকর্ষণীয়, বিশেষত এর স্লিম লুক একে ইম্প্রেশিভ বানিয়েছে। আপনি একে টিয়ারে রাখুন বা টেবিলে রাখুন এটি নিজেকে জাহির করবেই। 


পোর্টস আর কানেক্টিভিটি
 

এর কানেক্টিভিটির কথা বলা হয়েছে Xiaomi Mi LED স্মার্ট TV 4য়ে 3টি HDMI পোর্ট আছে, যার মধ্যে একটি ARC আর অন্য গুলি 2টি USB পোর্ট (1x USB 3 আর 1 x USB 2) আছে। এতে ইথারনেট পোর্ট, AV ইনপুট আর পুরনো অ্যান্টেনা কানেকশানও আছে।
টিভিটিতে অডিও আউটপুটের জন্য একটি S/PDIF পোর্ট আছে, এতে একটি HDMI এআরসি আছে, কিন্তু আপনার কাছে যদি এক জোড়া স্পিকার্স থাকে যা 3.5mm বা RCA সাপোর্ট করে তবে আপনি তা এই টিভিটির সঙ্গে যুক্ত করতে পারবেননা, যা একটু নিরাশা দায়ক। আর আপনি যদি আপনার স্পিকারের সঙ্গে কানেক্ট করতে চান তবে আপনাকে এক্সিয়ল ডিজিটাল অ্যাডাপ্তার কেবেল কিনতে হবে, যাতে 3.5mm বা RCA কানেকশান থাকে। আর আপনার কাছে যদি ব্লুটুথের সাপোর্ট যুক্ত স্পিকার থাকে তবে আপনি তা ব্লুটুথের সঙ্গে টিভির সঙ্গে কানেক্ট করতে পারবে, এই টিভিটি ওয়াই-ফাইও সাপোর্ট করে।
সব মিলিয়ে তিনটি HDMI পোর্ট একটি ভাল ব্যাপার, কিন্তু RCA বা 3.5 mmয়ের মতন ব্যাকলিপ অডিও আউটপুট না থাকা নিরাশাজনক। আর এছাড়া HDMI পোর্টের প্লেসমেন্ট খুব একটা সুবিধা জনক নয়। আর আপনার কাছে যদি একটি ফায়ার টিভি স্টিক বা ফার্স্ট জেনারেশাএন্র ক্রোমকাস্ট থাকে তবে আপনি কোন এক্সটেন্ডার ছাড়াই তা প্লাগ ইন করতে পারবেন।

ডিসপ্লে প্যানেল আর পিকচার কোয়ালিটি
কোম্পানি দাবি করেছে যে Xiaomi Mi LED Smart TV 4 য়ে স্যামসং য়ের বানানো 10-বিট VA প্যানেল আছে। আর টিভিটি 4K রেজিলিউশান নিয়ে এসেছে, যা 3840x2160 পিক্সাল যুক্ত। বেশিরভাগ প্যানেল এমনকি কিছু 4K TV’র প্যানেলেও 8 বিট আছে। আসুন তবে দেখা যাক যে 10 বিট থেকে আলাদা হবে আর একে কি মনে করা হবে। 8-বিট প্যানেল প্রত্যেক প্রাইমারি কালার (লাল, সবুজ আর নীল) য়ের জন্য 256 শেডস দুটিতেই সক্ষম। আর 10-বিট প্যানেল প্রত্যেক প্রাইমারি কালারে 1,024 রঙে প্রোডিউস করে। আর এর মানে এই 8 বিট প্যানেলে 16.8 মিলিয়ান রঙ( 256 x 256 x 256 = 16,777,216) দিতে পারে। আর সেখানে 10 বিট প্যানেল বিলিয়ান রঙে रंगों (1024 × 1024 × 1024 = 1,072,341,824)’র ব্যবহার করে থাকে। আর আপনি যদি একটি ভাল 4K HDR টিভিতে টাকা ঢালতে পারেন। আর আপনাকে সোনি, স্যামসং বা এলজির ভাল টিভি কেনার জন্য ১ লাখ টাকা দিতে হবে। Xiaomi Mi LED স্মার্ট TV 4  ভাল 4K এইচডি দেখার অনুভব দেয়। আর আপনি এই তুলনায় এক লাখের বেশি খরচ করা টিভি না কিনে এই রেঞ্জে আসলে Mi LED স্মার্ট TV 4  য়ের অভিজ্ঞতা সত্যিই ভাল। আর এটি ফ্ল্যাগশিপ ফিচার্সের বেশ কাছাকাছি আর তা হলেও এতে কিছু ত্রুটি আছে, আমরা সেই বিষয়েও বলব।

4K আর HDR স্ট্রিমিং
আপনি যদি এই টিভিটিতে 4K HDR কনটেন্ট দেখার জন্য কিনছেন তবে আপনি PS4 Pro, Xbox One X, Apple TV 4K, Chromecast আল্ট্রা বা 4K সাপোর্ট করে এমন কোন ডিভাইসের দরকার হবে। স্ট্যান্ডার্ড PS4 আর Xbox One S শুধু Netflix য়ের কনটেন্টের জন্য 4K সাপোর্ট করে গেমের জন্য নয়।
Xbox One S  আর One Xয়ে 4K ব্লু ড্রাইভস হয়। কিন্তু PS4 আর PS4 প্রো শুধু 1080p ব্লু রে করতে পারে। মনে রাখবেন যে বর্তমানে ভারতে ফায়ার টিভি স্টিক আর ক্রোমকাস্ট সবথেকে বেশি 1080 পিক্সাল রেজিলিউশান সাপোর্ট করে।

ভিউইং অ্যাঙ্গেলের ক্ষেত্রে এই ডিভাইসে আরও একটু উন্নতি করলে ভাল হত। আমাদের মনে হয় যে এতে একটি স্ট্যান্ডার্ড সেটিংস থাকলে ভাল হত। কারন ডেয়ারবিল্ড শোয়ের মতন এখানে বেশি অ্যাকশান অন্ধকারে হয়, আমদের ব্রাইটনেশ আর কনট্রাস্ট সেট করার দরকার হবে, এরকম কিছু ব্রাইট শো, যেখানে বেশিরভাগ অ্যাকশান দিনের আলোতে হয়, আমাদের ব্রাইটনেশ আর কন্ট্রাস্ট কম করার দরকার হয়। 

টিভি প্যানেলে রিফ্লেক্তিভ কিন্তু অনেক বেশি নয়, আমরা এর আগে যেমন দেখেছি। আর যদি এই তিভিটির দাম দেখা হয় তবে 4K HDR কন্টেন্টের জন্য ভিউইংয়ের অভিজ্ঞতা ভাল। ব্ল্যাক লেভেল বেশ ডিসেন্ট দেখতে আর ডার্ক সিনে ব্রাইট সিনের তাড়াতাড়ি পরিবর্তন হয় যা ট্রাঞ্জিট দেয়। কখনও কখনও ডার্ক এরিয়াতে কিছু সিনের ডিটেল কম দেখা যায়।

ফায়ার টিভি স্টিকে 1080p কন্টেন্ট
আমরা আগেই বলেছি যে ভারতে পাওয়া ফায়ার টিভি স্টিকে আর ক্রোমকাস্টে 1080pতে কনটেন্ট দেখা যেতে পারে। আমরা গেম অফ থ্রোন, ইয়াং শোল্ডান আর দুটি ডার্ক নাইট যথাক্রমেঃ হটস্পট, অ্যামাজন প্রাইম ভিডিও আর নেটফ্লিক্সে দেখেছি। আরও একবার আমরা একে Xiaomi Mi LED Smart TV 4তে দেখেছি আর গেম অফ থ্রোনের জন্য Mi LED Smart TV 4তে মুভি প্রিসেট ঠিক কাজ করেছে। ইয়াং শেল্ডানের জন্য আমদের ব্রাইটনেশ অনেকটা কম করতে হয়েছে, কারন এটি অনেক ব্রাইট আর ভাইব্রেন্ট শো। আর সেখানে এই টিভিটিতে দুটি ডার্ক নাইটের অনুভবও বেশ ভাল। এই টিভিতে একটি ফায়ার টিভি স্টিক কন্টেন্টের ওভার অল অভিজ্ঞতা বেশ ভাল।

গেমিংঃ কন্সোল গেমার দের এটি পছন্দ হবে
বেশিরভাগ এইচডিয়ার কন্টেন্ট বানানোর জন্য আপনাকে সেটিংসে ম্যানুয়ালি HDMI 2.0 সুইচ করতে হবে, একবার এরকম হওয়ার পরে কন্সোল 4K এইচডিআর হিসাবে টিভি চিনে নেবে। Xiaomi Mi LED Smart TV 4য়ে একটি গেম প্রিসেন্ট আছে, যা ইনপুটের সঙ্গে সাহায্য করে কিন্তু গেম মোড আর কাস্টম ইউজার্স সেটিংসে খোলা হলে খুব বেশি পার্থক্য থাকেনা।

PS4 Proতে আমরা আনচাটার্ড দুটি লস্ট লেগাসিকে ট্রেন চেজের সিকুয়েন্সে আর হরাইজান যুক্ত ওপেনিং স্পিবেন্স খোলে, দুটি গেম বেশ দেখতে ভাল আর এর অভিজ্ঞতাও ভাল। দুটি গেমই 30 সেকেন্ডে একটি 4K ইমেজ নিয়ে আসার জন্য সোনির জ্যাকরব্যান্ড রেন্ডিংয়ের ব্যবহার করে। হ্যাঁ এখানে ইনপুট লোগো আছে যা সেরকই যা আপনি অন্য কোন টিভিতে চান।

Playing Horizon Zero Dawn in 4K with HDR

Running the PS4 Pro in 4K HDR on the Mi TV 4

 

এবার পিসিকে Mi TV’র সঙ্গে কানেক্ট করার পরে আমরা HP Omen 17কে HDMIয়ের মাধ্যমে কানেক্ট করতে পারি, যাতে এটা জানা যায় যে পিসি গেমিং টিভিতে কিকরে দেখা যায়। আমরা ল্যাপটপের মাধ্যমে টিভিতে ব্যাটেলফিল্ড 1 খেলেছি কারন ব্যাটেলফিল্ড এইচডিআরে 4K পিসি গেমিংয়ের পরীক্ষা করার জন্য এক্ত্রি ভাল উদাহরণ। সবমিলিয়ে এর অভিজ্ঞতা ভাল, গেমের কালার ব্রাইটনেশ দেখা যাক।
 

HP Omen 17 য়ের স্পেসিফিকেশান

ইন্টেল কোর  i7-7700HQ প্রসেসার

উইন্ডোজ 10 হোম 64

16GB র‍্যাম

1 TB 7200 rpm HDD

256GB NvME SSD

NVIDIA GeForce GTX 1070 (8GB) 

17.3 ইঞ্চির FHD 120Hz IPS অ্যান্টি গ্লেয়ার ডিসপ্লে

পরিষেবার গুনমান

Mi TV 4 প্রিলোডেড পরিষেবার সঙ্গে আসে। এই রিভিউটি লেখার সময় এই টিভিটিতে শুধু সোনি লিভ, হাঙ্গামা আর বুট অ্যাক্টিভ আছে, কিন্তু সাওমি বলেছে যে এর ওপর খুব তাড়াতাড়ি আরও বেশি পরিষেবা সক্রিয় হবে আর ইউজার্সরা এই পরিষেবা চালু করতে চাইলে তাদের কিছু করতে হবেনা (তাদের মেম্বার হওয়া ছাড়া) আর যতক্ষণ টিভি ইন্টারনেটের সঙ্গে যুক্ত থাকবে ততক্ষণ আপডেট হয়ে যাবে। নিরাশার ব্যাপার এটাই যে নেটফ্লিক্স আর জিও টিভি এই পরিষেবার অংশ নয়, তবে এদুটিও খুব তাড়াতাড়ি অ্যাক্টিভেট হবে।

বেঞ্চ মার্ক

আমরা Xiaomi Mi LED Smart TV 4 তে স্পাইডার 4 এলিট চালিয়েছি আর বেঞ্চমার্কের ফল দেখিয়ে আমরা নীচে একটি গ্রাফ দিচ্ছি। আরমা ব্ল্যাক আর হোয়াইট লেভেলে পরীক্ষার জন্য টিভিতে যথাক্রমে লেগাম ব্ল্যাক আর লেগাম হোয়াইট টেস্টও চালিয়েছি। 

আপনারা টিভিতে লেগম ব্ল্যাক আর লেগম হোয়াইট লেভেল দেখতে পারছেন, যা পারফেক্ট, যেমনটা একটি 4K HDR TV’র কাছে আশা করা যায় যাতে 10-বিট প্যানেলা আছে। সোনি Sony A1’র তুলনায় NTSC, sRGB  আর অ্যাডব RGB’র স্কোড় কম। Sony A1’র তুলনায় Mi LED Smart TV 4’য়ে কনট্রাস্ট রেশিও অনেক পেছনে থাকবে বলে মনে করা হয়েছিল। কিন্তু দামের দিক থেকে Mi TV 4 একটি ভাল অপশান।

TV স্পিকারের অডিও কোয়ালিটি

Mi TV 4 য়ের অডিও কোয়ালিটি এর অন্যান্য ফিচার্সের তুলনায় একটু নিরাশা দায়ক। Mi TV 4য়ে দুটি ডাইনবার্ড ফায়ারিং 8 ওয়াটের স্পিকার আছে, যার পার্ফর্মেন্স মাঝারি মাপের ঘড়ের জন্য ঠিক তবে সিনেমা দেখার ভাল অভিজ্ঞ্রতা হয়না। এই টিভিটির সব থেকে বেশি সুবিধা নেওয়ার জন্য একটি ভাল সাউন্ডওয়্যার বা বুকসেলফ স্পিকার রাখতে হবে। এটিও খেয়াল রাখতে হবে যে এর রিমোটে মিউট বটন নেই আর এটি না থাকায় অনেকেরই এটা পছন্দ হবেনা।

রিমোট কন্ট্রোল

রিমোট কন্ট্রোলের কথা বললে সাওমির রিমোট কন্ট্রোলে থাক্লা বটন কম। আর এর ডিজাইন অ্যামাজন ফায়ার টিভি স্টীকের রিমোটের মতন দেখতে। ব্লুটুথের মাধ্যমে টিভিকে রিমোটের পেয়ার করা যেতে পারে, এর জন্য আপনাকে এটি চালানোর জন্য টিভিকে আরও কালার ফুল করতে হবে।

রিমোট একটি সাধারন রিমোট হিসাবে আর এর জন্য আপনাকে সেট বক্সে আমআই অ্যান্ড্রয়েড বক্স আর অন্য কিছু ডিভাইসের নিয়ন্ত্রন করতে হবে। হবে আমাদের ফায়ার স্টিক বা Xbox বন বা PS4 Pro য়ের সঙ্গে মিডিয়া প্লেব্যাকে কাজ করার অপশান আছে।

 

মোবাইল অ্যাপ

Mi TV নিয়ন্ত্রন করার জন্য একটি মোবাইল অ্যাপ আছে, ইউআইয়ের কাছে একটি ক্লিন ইন্টারফেস আর প্রধান বটনও আছে, যা রিমোট কন্ট্রোলে নেও। রিমোট কন্ট্রোল অ্যাপটি বেশ ভাল আর আটি টিভির স্ক্রিন স্ট নিয়ে ডায়রেক্ট ফোনে সেভ করতে পারবেন। এতে একটি অপশান আছে যা আপনি ফোনের সাহায্যে টিভিতে অ্যাপ ওপেন করতে পারবেন। ভবিষ্যতে আপনি আপনার স্মার্টফোনে অ্যাপ ডাউনলোড করতে পারবেন আর যদি টিভির সঙ্গে এটি যুক্ত থাকতে তবে আপনি তা এই মেনু থেকে লঞ্চ করতে সক্ষম হবেন। অ্যাপে টিভিতে গেম খেলার জন্য আপনাকে স্মার্টফোনে গেমপ্যাডে বদলানোর বিকল্পও আছে।

If your smartphone doesn’t have an IR blaster then some of the features of the app won’t work, so keep that in mind.

প্যাচওয়েল আইএস

সাওমি Mi LED স্মার্টটিভি 4 আর অন্যানয় স্মার্ট টিভির মাঝে সব থেকে বড় পার্থক্য এর UI। বেশিরভাগ স্মার্ট টিভিতে অ্যান্ড্রয়েডে চলে। LG TVs WebOS আর স্যামসং টিভি Tizenয়ে চলে। Mi TV’s  প্যাচওয়েলে আইএসের লক্ষে এই স্মার্ট টিভিতে কি করা উচিৎ আগে কন্টেন্ট আর পরে অ্যাপ করা দরকার।

আপনি যদি প্রথম বার টিভি বুট করেন তবে আপনার পরিষেবা দেওয়া কন্টেন্টের একটি বল দেখতে পারবেন যা সাওমির সঙ্গে যুক্ত। এর একবার আপনি নিজের সেট টপ বক্সে সেটআপ করে নিলে কন্টেন্ট টিভি আইএসের সঙ্গে এককৃত হয় না শুধু আপনাকে চ্যানেলের জন্য একটি টাইটেল ইন্টারফেস দেখতে পারবেন। কন্টেন্ট থাম্বলেনে আপনি মুভি বা টিভি শোর সাইডের পাতলা প্লে দেখতে পাবেন।

সিধান্ত

আপনি যদি জানতে চান যে এই দামে এই টিভিটি কেনা ঠিক হবে কিনা?তবে তার উত্তর হ্যাঁ। 39,999 টাকায় আপনি একটি 10-বিট প্যানেল পাবেন যা 4K আর HDRয়ে কন্টেন্ট দিতে সক্ষম আর আমাদের মনে হয় যে টিভি কেনার সময় এটি সব থেকে বড় বিষয়।আর এছাড়া এই টিভিটি 60Hzয়ে  4K এইচডিআর দেয়। আর  যদি আপনি OSএ খুসি না হন তবে আপনি সবসময় ক্রোমকাস্ট,ফায়ার টিভির স্পিকার সেরা নয়, যা আপনি ভাল ভাবে ফিল্মে দেখতে পাবেন। কিন্তু বেসির ভাগ টিভির স্পিকার এরকমই হয়। এই টিভিটিতে 3.5mm আর RCAয়ের মতন কানেকশান অপশান থাকা দরকার। টিভি প্যানেলের সঙ্গে একমাত্র সমস্যা এটি রিফ্লেক্টিভ আর ব্ল্যাক লেবেল আর হোয়াইট হতে পারত। আর যদি আপনি 40 হাজারের কম দামে একটি 4K টিভি চান তবে TV একটি ভাল অপশান হতে পারে।

logo
Sameer Mitha

Sameer Mitha lives for gaming and technology is his muse. When he isn’t busy playing with gadgets or video games he delves into the world of fantasy novels.

Advertisements
Advertisements

জিয়াওমি Mi TV

জিয়াওমি Mi TV

Digit caters to the largest community of tech buyers, users and enthusiasts in India. The all new Digit in continues the legacy of Thinkdigit.com as one of the largest portals in India committed to technology users and buyers. Digit is also one of the most trusted names when it comes to technology reviews and buying advice and is home to the Digit Test Lab, India's most proficient center for testing and reviewing technology products.

We are about leadership-the 9.9 kind! Building a leading media company out of India.And,grooming new leaders for this promising industry.