মোটোরোলা Moto X4 6GB Review

দ্বারা Subhrojit Mallick | আপডেট করা Apr 04 2018
মোটোরোলা Moto X4 6GB Review
DIGIT RATING
76 /100
  • design

    87

  • performance

    76

  • value for money

    40

  • feature

    94

  • PROS
  • প্রিমিয়াম গ্লাস ডিজাইন
  • মোটো অ্যাকশান
  • CONS
  • স্লো ক্যামেরা
  • বেশি র‍্যাম কোন দরকারি পার্ফর্মেন্স দেয় না

নির্ণয়

আপনি যদি সবার প্রথমে মোটোর অ্যাক্সান আর AI সেন্ট্রিক ক্যামেরা ফিচার্স দেখতে চান তবে আপনাকে এই ফোনে নজর দিতেই হবে। কিন্তু এটা খেয়াল রাখতে হবে যে এই ফিচার্সটি সব মোটো ফোনে একই রকমের আর বিশেষত Moto G6 যা MWC 2018তে লঞ্চ হওয়ার কথা, যা Moto X4 (6GB)’র দাম 24,999টাকা থেকে বেসি সস্তা হবে। Moto X4 এর 6GB র‍্যাম আর 64GB স্টোরেজ ভেরিয়েন্ট টপে, এর পড়ে এটি ফলো করে Moto X4 এর 4GB র‍্যাম আর 64GB স্টোরেজ ভেরিয়েন্ট আর Moto X4 এর 3GB র‍্যাম আর 32GB স্টোরেজ ভেরিয়েন্ট লাইনে আছে। তবে এই ফোনটির দাম 20,999 টাকা থেকে শুরু হয়ে 24,999 টাকা অব্দি। ইউজার্সদের জন্য 20000 টাকা থেকে 25000 টাকার রেঞ্জের সব বাজেটের জন্য Moto X4 এর ভার্সান আছে।

BUY মোটোরোলা Moto X4 6GB
Buy now on flipkart পাওয়া যাচ্ছে 10990
Buy now on amazon পাওয়া যাচ্ছে 13990

মোটোরোলা Moto X4 6GB detailed review

বড় বেজেল-লেস স্ক্রিন এর যুগে কম্প্যাক্ট ফোনে অনেক ত্রুটি দেখা যাচ্ছে। গত বছর মোটো তাদের Moto X4 ফোনটি লঞ্চ করেছিল। এই ফোনটি একটি প্রিমিয়াম গ্লাস আর মেডাল ডিজানের সঙ্গে এসেছিল। আর এর সঙ্গে এই ডিভাইসটিতে শক্তিশালী মিড-রেঞ্জ স্ন্যাপড্র্যাগন চিপসেট আর 4GB র‍্যাম ছিল। কিন্তু 4GB র‍্যাম যুক্ত ফোনে পাওয়ার ইউজারদের ফোন হিসাবে ভাল ছিল না আর তাই মোটো এই ফোনটির একটি 6GB র‍্যাম ভেরিয়েন্ট নিয়ে এসেছে।


এই ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড 8.0 ওরিওতে কাজ করে, আর এরকম হবে বলেই মনে করা হয়েছিল। আর এর সঙ্গে ক্যামেরাতেও কিছু আপগ্রেড করা দেখা গেছে। আমারা পুরনো Moto X4 এর রিভিউ করেছিলাম আমাদের মনে হয় যে নিজের রপিমিয়াম আর কম্প্যাক্ট ডিজাইন স্বতেও এই ফোনে বের কিছু ত্রুটি আছে। 

আর এরকম মনে করা হচ্ছিল যে নতুন Moto X4 এ নতুন আর আপগ্রেটেড হার্ডওয়্যার যুক্ত হবে, তবে শুধু মাত্র  র‍্যামের আপগ্রেড নিরশা দায়ক। Moto X4 এর দাম তার 4GB ভেরিয়েন্টটির তুলনায় 2,000টাকা বেশি। আমরা ফোনটি আমাদের বেঞ্চমার্কিং টেস্ট সেট চালিয়েছি আর কিছু উন্নন্ত স্কোর পেয়েছি।

অতিরিক্ত 2GB  র‍্যাম আপনাকে কি দেবে?

সোজা কথায় বলতে গেলে বেশি র‍্যাম থাকলে ফোনে তেমন মেমারি থাকতে হবে যাতে এক সময় অনেক কাজ করা যায়। আপ্নি ব্যাকগ্রাউন্ডে বেশি অ্যাপ খুলে রাখতে পারনে আর কোন স্পিডের কাজ করতে পারেন, যেমন ফটোশপ, গেমিং ইত্যাদি। আমার মতে Moto X4 বেশি র‍্যামের সঙ্গে আপগ্রেড করে জেনারেল পার্ফর্মেন্স উন্নত করাতে বেশি স্পেক্স পছন্দ করে যারা তাদের প্রভাবিত করে।

Moto X4 এর 4GB র‍্যাম ভেরিয়েন্টে সব কাজ করার জন্য ভাল ছিল আর সারা দিন সব কাজ সহজে করত আর এবার 2GB র‍্যাম বাড়ানোর পড়ে বেশি মেমারি ফ্রি থেকে যায়।

আপনি যদি ফোনের পাওয়ার অন করেন আর ফ্রি র‍্যাম দেখেন তবে আপনি দেখতে পারবেন যে 6GB র‍্যাম ভেরিয়েন্টে অতিরিক্ত 73%  মেমারি আছে আর 4GB র‍্যাম ভেরিওয়েন্টে অতিরিক্ত 62% মেমারি পাওয়া যেত। তবে কিছু অ্যাপ খোলার পরে ফোন একটু ব্যবহার করার পরে দুটি ভেরিয়েন্টে অতিরিক্ত র‍্যাম প্রায় একই রকম বাচে। এটা একটু অবাক করার কারন অ্যান্ড্রয়েড ওরিও হাল্কা আর এটি অ্যান্ড্রয়েড ওরিওর তুলনায় কম মেমারি নেওয়া উচিৎ। কোন কারনে Moto X4 4GB এর তুলনায় Moto X4 6GB র‍্যামের ব্যবহার বেশি হয়েছে।

দেখুন যে আপনি কি করতে পারবেন

নতুন Moto X4 নতুন মোটো অ্যাক্সানের সঙ্গে আসে যা ‘অ্যান্টেটিব ডিসপ্লে’ বলে পরিচিত, এই ফিচারটি এই জে আপনি যতক্ষণ স্ক্রিনের দিকে তাকিয়ে থাকবেন ততক্ষণ এটি অন তাহকবে আর আপনি চোখ সরিয়ে নিলেই এটি বন্ধ হয়ে যাবে। ব্যাটারি কম খরচ করার জন্য এরকম করা হয়েছে। এই ফিচারটির জন্য ফ্রন্ট ক্যামেরা কাজ করে।

অন্য মোটো অ্যাক্সেস যাতে মোটো ভয়েস আর মোটো ডিসপ্লে আছে, লো-পাওয়ার অলওয়েজ ইন চিপ ব্যবহার করা হয়েছে। মোটো ভয়েস ফোনের স্থানান্তরিত ভয়েস অ্যাসিস্টেন্স যা “শো মি” কমান্ডস ব্যবহার করে অ্যাপ ওপেন করে আর ফোনের লাইট বন্দ হওয়ার পরেও টাস্ক পার্ফর্ম করে। ডিভাইসে গুগল অ্যাসিস্টেন্স থাকা স্বত্তেও “শো মি” কমান্ড অনেক বেশি ব্যবহারযোগ্য আর এর মাধ্যেম ছোট টাস্ক যেমন ওয়েদার, অ্যাপ ওপেন করা এসব টাস্ক করা যায়।

 

এরকম হতে পারে যে মোটোর মোটো অ্যাক্সানের একটি কাজ না করার ফিচার হিসাবে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু এতে কিছু ভাল, উপযোগী আর ইউনিক ফিচার্সও আছে।স্প্লিট স্ক্রিন অ্যাপ সহজেই চলার জন্য বেশি মেমারি ব্যবহার করা হয়, ক্মিন্তু অন্যান্য এধরনের আপনি যা নোটিস ক্রচনে। যদি আপনি Moto X4 এর 4GB ভেরিয়েন্টটি ব্যবহার করেন তবে এই ফোনটি আপগ্রেড করার কোন মানে হয়না। কিন্তু সত্যি এটা যে অতিরিক্ত রোম থাকা সব সময় ভাল হয়, কারন যখন ফোনে প্রেসার বারে তখন রোম ভাল সাহায্য করে।

স্লো কিন্তু ব্যালেন্সড ক্যামেরা 

 

মোটো ইমেজ কোয়ালিটিতে উন্নতি করেছে আর এবার এটা বিশ্বাস করা যায় যে মোটো আগের Moto X4 এর তুলনায় ভাল ক্যামেরা আপগ্রেড করেছে।

দেখা যাবে যে Moto X4 এর ইমেজ কোয়ালিটি ভাল হয়েছে। ডিটেলস শার্প আর এর বিপরীত টোন একটু কম হয়েছে। ফোনে 8 মেগাপিক্সাল রেজিলিউশানের 120 ডিগ্রি ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স আছে আর ভেরাল ডিস্টোর্শেন এখনও বাকি আছে। Moto X4 এর ক্যামেরা নিজের ইমেজ কোয়ালিটর জন্য সহনীয়। এটি লোয়ার মিড রেঞ্জ ফঞ্জের মতনও নয় যা খুব বেশি আর এও ঠিক যে এটি হাই-এন্ড ফ্ল্যাগশিপের মতনও নয়। f/2.0 প্রাইমারি লেন্স ভাল ছবি তোলে। আপনি এটা বলতেই পারেন যে এর ফল বেশ ভাল দেখায়। আর অনেক বাজেট ফোনের ক্যামেরা একদম সাথে সাথে ছবি ক্লিক করে কিন্তু Moto X4 এর ক্যামেরা ছবি তুলতে এক সেকেন্ডের বেশি সময় নেয়। এই সমস্যাটি পুরনো Moto X4  এও ছিল আর কখনও কখনও স্পিডে ছবি নেওয়ার সময় এটি অনুপযোগী হতে পারে।

 

শার্পনেস ভাল হয়েছে, কিন্তু এবার ডায়নামিক কন্ট্রাস কমে গেছে।

বেরাল ডিস্টর্শেন অনেক বেশি বেড়ে গেছে আর ওয়াইড-অ্যাঙ্গেল লেন্স সবসময় একটি সঠিক পছন্দ নয়।

তবে ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স জিনিসে একটি নতুন দৃষ্টিকোন দেয়।

ডিটেলস শার্প তবে একটু বেশি জায়গা নেয়।

 

ইন্ডোর লো লাইট শট ভাল।

ভাল লো লাইট শট কি করে নেওয়া যাবে? লাইটের অংশকে হাইলাইট করুন আর বাকি অংশ কে ডার্ক করুন।

ডেপথ-ইনেবেল ফিল্ডকে ডেপথের সুবিধা পাওয়ার জন্য ডুয়াল ক্যামেরা ব্যবহার করে তবে ফল ব্লার হয়।

মোটো ক্যামেরা অ্যাপে দুটি নতুন ফিচার্স আছে, বোজেক্টার আর ল্যান্ডমার্ক রেকগজেশান। অবজেক্ট রেকগজেশান ভিসুয়াল সার্চ আর এটি বেশ ভাল, তবে এই অবজেক্টকে চিনতে অনেক বেশি সময় নেয়। আমরা ল্যান্ডমার্ক রেকগজেশান ফিচার ব্যবহার না করতে পারিনি কারন সেখানে কাছাকাছি কোন চেনা ল্যান্ডমার্ক ছিলনা।

এছাড়া Moto X4এ অনেক ফেস ফিল্টার্স আছে। এটি Honor 9i এর মতন একদম ভাল ন্য তবে কাজ সম্পূর্ণ করে। তবে, ফ্রন্ট ক্যামেরা প্রশংসনীয়। আতি আপনাকে ভাল দেখনোর জন্য স্যাচুরেশান বাড়িয়ে দেয় আর এতে অনেক বিউটিফাই ফিচার্সও আছে। সব মিলিয়ে Moto X4 6GB একটি ভাল সেলফি ক্যামেরা। তবে ফ্ল্যাশ অনেক সময় কাজ একটু বাজে করে দেয়।

মজার বিষয়ে এই যে নতুন ক্যামেরা ফিচার্স লেটেস্ট অ্যান্ড্রয়েড ওরিওর অংশ যা খুব তাড়াতাড়ি পুরানো Moto X4এ পাবে। এর মানবে এই যে ক্যামেরা ফিচার্স Moto X4 এর নতুন আপডেট পাওয়ার পরে হয়েছে।

ফ্রেশ স্টক অ্যান্ড্রয়েড

ক্যামেরা আর রোমের আপডেট ছাড়া, Moto X4 এই বার অ্যান্ড্রয়েড ওরিওর সঙ্গে আসবে। আর এর জন্য এই ফোনে নতুন ফিচার্স দেওয়া হয়েছে যাতে পিকচার-ইন-পিকচার, নোটিফিকেশান ম্যানেজমেন্ট আর বেশি ছোট সেটিংস অ্যাপ আর আরও অনেক ফিচার্স আছে। আপনি ডিসপ্লে কালার টেম্পারেচারও নিজের অনুসারে কন্ট্রোল করতে পারেন, যা আগের Moto X4 এ ছিলনা। সব থেকে দরকারি বিষয়ে এই যে নতুন Moto X4 লেটেস্ট অ্যান্ড্রয়েড সিকিউরিটি প্যাচে চাকল্র ফলে বেশি সুরক্ষিত।

তবে নতুন Moto X4 এ অনেক নতুন ফেসিয়াল আপগ্রেডেশান নেই। দুটি একে ওপরের মতন। ব্যাকে 3Dগ্লাসকে মেটাল ফ্রেমে সেট করা হয়েছে। এটি একটি কম্প্যাক্ট ফোনও, এতে 5.2 ইঞ্চির 1080p ডিসপ্লে আছে, যা এই সময়ে বেশি দেখা যায়না। 2GB র‍্যাম ছেড়ে UI সম্পূর্ণ ভাবে সমান যার মধ্যে ব্যাটারি আছে। তবে, অ্যান্ড্রয়েড ওরিও বদলালে ব্যাটারি লাইফেরও পরিবর্তন হওয়া উচিৎ।

এটি কি প্রিমিয়ামের যোগ্য?

এত কিছু বলার পরে প্রশ্ন ওঠে যে আপগ্রেটেড Moto X4 এর জন্য অতিরিক্ত 2,000 টাকা দেওয়া উচিৎ কিনা? যদি আপনি সবার আগে নতুন মোটো অ্যাক্সান আর AI সেন্ট্রিক ক্যামেরা ফিচার্স দেখতে চান তবে আপনাকে এই ফোনটির দিকে নজর দিতে হবে। কিন্তু এটা খেয়াল রাখার যে এই ফিচার\টি এই বছরের সমস্ত মোটো ফোনে একই রকমের হবে আর বিশেষত Moto G6 এ যা Moto X4 (6GB) 24,999 টাকার জায়গা নিতে পারে।

Moto X4 এর 6GB র‍্যাম আর 64GB স্টোরেজ ভেরিওয়েন্ট টপে, এর পরে এটি অনুসরন করে Moto X4 এর 4GB র‍্যাম আর 64GB স্টোরেজ ভেরিয়েন্ট আর Moto X4 এর 3GB র‍্যাম আর 32GB স্টোরেজ ভেরিয়েন্ট লাইনআপে আছে। তবে এই ফোনটির দাম 20,999 টাকা থেকে শুরু হয় আর 24,999 টাকা অব্দি হয়। ইউজার্সের জন্য 20000 টাকা থেকে 25000টাকা বাজেটের মধ্যে Moto X4 এর ভার্সান আছে।

মোটোরোলা Moto X4 6GB Key Specs, Price and Launch Date

Price:
Release Date: 01 Feb 2018
Variant: 64GB
Market Status: Launched

Key Specs

  • Screen Size Screen Size
    5.2 | NA
  • Camera Camera
    12 + 8 MP | 16 + 4 MP
  • Memory Memory
    64 GB/6 GB
  • Battery Battery
    3000 mAh
logo
Subhrojit Mallick

Eats smartphones for breakfast.

Advertisements
Advertisements

মোটোরোলা Moto X4 6GB

মোটোরোলা Moto X4 6GB

Digit caters to the largest community of tech buyers, users and enthusiasts in India. The all new Digit in continues the legacy of Thinkdigit.com as one of the largest portals in India committed to technology users and buyers. Digit is also one of the most trusted names when it comes to technology reviews and buying advice and is home to the Digit Test Lab, India's most proficient center for testing and reviewing technology products.

We are about leadership-the 9.9 kind! Building a leading media company out of India.And,grooming new leaders for this promising industry.

DMCA.com Protection Status